৪ জানুয়ারি , ২০২১

কি হতো যদি শব্দের গতিবেগ আলোর গতিবেগের চেয়ে বেশি হত? বিশ্বে চলতো যত অবাক করা কাণ্ড। প্রথমত যেটা সবার আগে মনে পড়ছে সেটা হল , বজ্র-বিদ্যুতের সময় বজ্রের শব্দ আগে শুনতে পাওয়া যেত কিন্তু আলোর ঝলকানি দেখা যেত পরে। আবার শব্দ বাজি পোড়ানোর সময় ,আগেই বাজির শব্দ শুনতে পাওয়া যেত কিন্তু তখনো বাজিটিকে অক্ষত অবস্থায় দেখতে পাওয়া যেত। আবার যদি একটু বড় আকারে ভাবি তাহলে , হয়তো হিরোশিমা-নাগাসাকি পরমাণু বোমা ফেলার সময় শব্দ আগেই শুনতে পাওয়া যেত কিন্তু তখনো হয়তো দেখা যেত যে বোমাটি এখনো মাটি থেকে কয়েকমিটার ওপরেই আছে।

আবার , যেমন টেলিভিশনে যাতে শব্দ ও ছবির যাতে ছন্দপতন না ঘটে সেজন্য শব্দকে কয়েক সেকেন্ড বা মাইক্রোসেকেন্ড মন্থর ভাবে চালানো হত। আবার কেউ বন্ধুক চালালে দেখা যেত বুলেট এখনো বন্ধুক ছেড়ে বের হয়নি কিন্তু শব্দ শুনতে পাওয়া গেলো।

ভেবে দেখো নিজেই , এরকম কতই অবাক করা কাণ্ড ঘটত! 

আজ আর আমার মস্তিষ্ককে বেশি খাটালাম না। কালকে সারাদিন যে অসুস্থতায় কাটিয়েছি যে শরীর দুর্বল লাগছে । আজকে আবার সকাল থেকেই মেঘ ছিল তাই ঠাণ্ডাটা আজ বেশ কম আছে।